অনেকদিন ধরে ভাবতে লাগলাম মাগীদের ভোদা দেখব । যেই কথা সেই কাজ চলে গেলাম যশোর ।ধন খেচতে খেচতে আর ভাল লাগছিল না।সেখানে গিয়ে মাগী চুদে ভোদার রসে ধনটাকে ঠান্ডা করব।যে কথা সেই কাজ, মন্দিরের বিপরিতে মাগী চুদতে চলে গেলাম।ওখানে গিয়ে লজ্জা লাগছিল তাই ১ বন্ধু কে ১০০ দিয়ে পাঠিয়ে দিলাম ৩০মিনিট পর চুদে এল সে বলল খুব মজা ।পরে দুজন এক সাথে গেলাম সেখানে অনেকগুলো মাগী বসা ছিল।আমি বয়স কম দেখে সুন্দরী একটা মাগী নিলাম।আমি মাগী নিয়ে রুমে ঢুকে গেলাম।জানলাম মাগীর নাম কবিতা।আমি কবিতাকে বললাম মাগী চোদায় আমি নতুন,তুমি আমাকে শিখাও কিভাবে চুদলে বেশি মজা।কবিতা বলল ১২ বছরের পোলাও জানে কিভাবে চুদতে হয়,কিভাবে মজা পাওয়া যায়। সে আমাকে ওর জামা খুলে দুধ বার করে দিল।আমি দুধ টিপতে শুরু
করলাম।ওদিকে এক বন্ধু দরজার সাথে বসে আছে মাগী কনডম দিয়ে বলল এটা তোমার ধনে পর আমার ধন শক্ত হয়ে গিয়েছিল।সে ওর সব কাপড় খুলে ভোদা বের করে আমাকে আমার প্যান্ট খুলতে বললো।আমি প্যান্ট খুললে আমার ধন দেখে ও বললো এত্তো মোটা আমি নিইনা আমার ভোদা ফেটে যাবে,আমি বললাম তোমরা আমার চেয়ে বড় বাড়া নিতে পার ও একটা কনডম নিয়ে আমার ধনে পরাল।পরে দরজা বন্দ করে বিছানায় শুয়ে পরল।আমি ওকে দু পা উচু করে খেলতে চাইলাম কিন্তু মাগী বলল আমার ব্যথা লাগবে সুয়ে পড়ে চুদো তারপর আমার ধনে স্যভলন লাগাল যাতে বাড়াটা ফচাৎ করে ঢোকে।আমি আমার বাড়াটা তার ভোদায় ফুটোতে লাগিয়ে ঢুকাদত লাগলাম মাগী উ উ করে উঠল বলল আস্তে দে ব্যথা ত । আমি তার কচি দুধ ধরে অনেক্ষন কামড়াতে ,চুষতে লাগলাম । এদিকে অন্য মাগীদের সাথে আড্ডা মারছে এনাফ বন্ধু। এনাপের ধন তখন প্যানট ছিড়ে বেরুবে মনে হচ্ছিল কারন সে,আমি দুজনেই প্রথম ভোদার মুখ চোখে দেখলাম । আমি চুদলাম মাগী বলল আ চুদো না এত সময় লাগে তোমার চুদতে আমায় ছাড়
বাইরে তোমার বন্দু বসে ধন কচ্চালেছে তাকে চোদতে হবে তুমি উঠ ভোদা থেকে তোমার ধন বের কর।আমি ১০০ দিয়ে চলে এলাম মাগী বলল আমার বকসিস দেয়।আমি বললাম তুমি আমাকে মজা দিতে পারনি আমি আর তোমার কাছে আসবনা ।আমার বন্দু প্রথম তুমি তাকে ভাল করে চুদো মজা দিউ প্লিজ আমি রাস্তাই অপেক্ষা করছি।বন্দু ঘরে ঢুকে মাগীর পাছা টিপতে লাগল এবং মাগী কে বলল তোমরা এভাবে কয়জনের বাড়া নিতে পার । মাগী বলল তুমি আমাকে ভিম চোদা চুদে ভোদা ফাটিয়ে দাউ।তোমার আগের বড় বাড়াআলা বন্দু বলল তুমি নতানে আমাকে ভালো করে তোমার চুদতে বলেছে এস । তারপর কবিতা মাগী তাকে খাটে শুয়িয়ে তার ধনে বেলুন পরিয়ে দিল। এবং তারপর সে ভিম চোদা চুদতে সুরু করল। সে খুব মজা পেল যেন সে স্বর্গে উঠে গেল।কিছুক্ষন চোদার পর সে হাপিয়ে চিরিৎ চিরিৎ করে মাল মাগীর ভোদার উপর ঢালে নেমে পড়ল।মাগী বুঝল এ মালটার মনে হয় সিস্টেম জানা আছে । সে পানি দিয়ে ধন ধুয়ে দিল।সে জামা প্যান্ট পরে ১০২ টাকা দিয়ে নিচে চলে আসল।তারপর আমরা ৩ বন্দু সুশিতে আলোচনা করতে করতে বাড়িতে চলে এলাম।

:=: